logo

শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০ | ২৬ আষাঢ়, ১৪২৭

header-ad

বিএনপি-ঐক্যফ্রন্টে ফাটল!

ফেমাসনিউজ ডেস্ক | আপডেট: ২৮ জানুয়ারি ২০১৯

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির ধানের শীষ প্রতীকে ভোটে লড়েন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা। নির্বাচনের এক মাস যেতে না যেতেই বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টের মধ্যে ফাটল ধরেছে। এর আগে বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচিত সাংসদরা জানিয়েছিলেন যে, একাদশ জাতীয় সংসদে তারা শপথ নেবেন না। কিন্তু মাস না পেরুতেই ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচিত দুই সাংসদ শপথ নেয়ার কথা জানিয়েছেন। 

আগের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসে ঐক্যফ্রন্টের ব্যানারে জয়ী দুই জনপ্রতিনিধি শপথ নিতে যাচ্ছেন। শপথ নেয়ার কারণও জানিয়েছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতা সুলতান মোহাম্মদ মনসুর ও গণফোরাম নেতা মোকাব্বির খান। যদিও ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষনেতা ড. কামাল হোসেন ও বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের তরফে এ বিষয়ে কোনো বক্তব্য আসেনি।

ঢাকসুর সাবেক ভিপি ও আওয়ামী লীগের সাবেক নেতা সুলতান মনসুর ঐক্যফ্রন্টের ব্যানারে ধানের শীষ প্রতীকে মৌলভীবাজার-২ আসন থেকে নির্বাচিত হয়েছেন। আর সিলেট-২ আসন থেকে নির্বাচিত হয়েছেন গণফোরামের মোকাব্বির খান। সিলেট-২ আসনে ধানের শীষের প্রার্থীর প্রার্থিতা বাতিল হয়ে যাওয়ায় গণফোরাম নেতা মোকাব্বির ঐক্যফ্রন্টের সমর্থন নিয়ে উদীয়মান সূর্য প্রতীকে নির্বাচন করে জয়ী হয়েছেন।

ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী সুলতান মনসুর শপথ নিচ্ছেন জানিয়ে গণমাধ্যমকে বলেন, আমি বেশ কিছুদিন ধরে অসুস্থ হয়ে বিশ্রামে আছি। এ সময়টাতে আমার নির্বাচনী এলাকা জনগণ, যারা শত ঝুঁকি নিয়েও আমাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছেন তাদের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। সারাদেশের অনেক নেতাকর্মী এবং সাধারণ মানুষের মতও আমি নিয়েছি। আমি একজন মানুষও পাইনি যিনি আমার শপথের বিপক্ষে। সবাই একবাক্যে বলেছেন- আমার নির্বাচনী এলাকার জনরায়কে মূল্য দিয়ে শপথ নিতে। যেহেতু জনগণের জন্য রাজনীতি করি সেহেতু জনগণের মতামতকে মূল্য দিতে হবে। আমার প্রতি মানুষের প্রত্যাশা রয়েছে, তেমনি আমারও দায়বদ্ধতা রয়েছে তাদের মতের প্রতি।

সিলেট-২ আসনে নির্বাচিত মোকাব্বির খানও শপথ নেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। বলেন, নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের শপথ নেয়ার বিষয়ে আমার নেতা ড. কামাল হোসেন সবসময় ইতিবাচক। আমরা দু’জনই (সুলতান মনসুর ও মোকাব্বির) শপথ নেব।

এদিকে ভোটে নির্বাচিতরা শপথ না নেয়ার বিষয়ে ঐক্যবদ্ধ আছে জানিয়ে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আজ নয়াপল্টনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, ঐক্যফ্রন্টের কোনো প্রার্থী ব্যক্তিগতভাবে শপথ গ্রহণ করবে কিনা আমার জানা নেই। তবে এখনো বিএনপি এবং ঐক্যফ্রন্ট ঐক্যবদ্ধ আছে।

তিনি বলেন, যেকোনো বিষয়ে বসে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে। নির্বাচনী ট্রইব্যুনালে মামলা করবেন প্রত্যেক প্রার্থী। দলীয়ভাবে এটা করা হবে না। প্রত্যেকে তার ইচ্ছামতো সময়ে মামলা করবেন।
ফেমাসনিউজ২৪/এফএম/এমএম