logo

শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০ | ২৬ আষাঢ়, ১৪২৭

header-ad

আমন্ত্রণে অসম্মতি, কর্মসূচি ঘোষণা

রাজনীতি ডেস্ক | আপডেট: ৩১ জানুয়ারি ২০১৯

প্রধানমন্ত্রীর চা-চক্রের আমন্ত্রণ প্রত্যাখ্যান করেছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে 'ভোট ডাকাতি' উল্লেখ করে দু'দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে ঐক্যফ্রন্ট।

৩১ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর মতিঝিলে ঢাকা মেট্রোপলিটন চেম্বারে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র ও বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেছেন, ৩০ ডিসেম্বর ভোট ডাকাতির প্রতিবাদে আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে বিকেল তিনটা থেকে চারটা পর্যন্ত কালো পতাকা প্রদর্শন করা হবে।

মির্জা ফখরুল বলেন, ২৪ ফেব্রুয়ারি প্রার্থীদের নিয়ে গণশুনানি অনুষ্ঠিত হবে। গণশুনানির সময় এবং স্থান পরে জানিয়ে দেয়া হবে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ৩০ ডিসেম্বর প্রহসনের নির্বাচনের পর আমরা প্রধানমন্ত্রীর চা-চক্রের আমন্ত্রণে যাব না।

এর আগে গত শনিবার প্রধানমন্ত্রী জাতীয় ঐক্যফ্রন্টকে চা-চক্রের আমন্ত্রণ জানিয়ে চিঠি দেন। আগামী শনিবার গণভবনে শুভেচ্ছা বিনিময় ও চা-চক্রের আয়োজন রয়েছে।

সেখানে অন্যান্য রাজনৈতিক দলকেও আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। তবে ঐক্যফ্রন্ট এ দাওয়াতে অংশ নেবে না বলে জানান ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র ও বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

সংবাদ সম্মেলনে গণফোরামের দুই নির্বাচিত প্রার্থীর শপথ নেয়ার বিষয়ে ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষনেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেন, আমরা আমাদের দলীয় সিদ্ধান্ত আগেই জানিয়ে দিয়েছি। আমাদের কেউ শপথ নেবে না।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মৌলভীবাজার-২ আসন থেকে ঐক্যফ্রন্টের হয়ে ধানের শীষ প্রতীকে বিজয়ী হন সুলতান মোহাম্মদ মনসুর। সিলেট-২ আসনে নির্বাচিত হন মোকাব্বির খান। তারা একাদশ সংসদে যোগ দিতে শপথ নেবেন বলে গণমাধ্যমকে জানান। এ নিয়ে সংবাদমাধ্যমে শিরোনাম হন বিজয়ী দুই সাংসদ।
ফেমাসনিউজ২৪/এফএম/এমএম