logo

বুধবার, ১৫ জুলাই ২০২০ | ৩০ আষাঢ়, ১৪২৭

header-ad

গণতন্ত্রের মৃত্যু হয়েছে : ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট: ০২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন বলেন, আজকে ইকোনোমিস্টের মতো পত্রিকা ক্যাপশন করছে, গণতন্ত্রের মৃত্যু হয়েছে। অর্থাৎ গোটা পৃথিবীর মিডিয়া জানে যে, বাংলাদেশে গণতন্ত্রের মৃত্যু হয়েছে। গত ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত নির্বাচন নিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

আজ শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে ‘আওয়াজ’ নামে একটি সংগঠন আয়োজিত ‘সহিংসতা ও নারী: বর্তমান প্রেক্ষাপট’ শীর্ষক আলোচনা সভায় ফখরুল এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগ দ্বিতীয়বারের মতো গণতন্ত্রকে ধ্বংস করেছে অভিযোগ করে মির্জা ফখরুল বলেন, যে দলটি গণতন্ত্রের কথা বলেছে, সংগ্রাম করেছে, সেই দলটি আজ আবার দ্বিতীয়বারের মতো গণতন্ত্রকে হত্যা করল। প্রথমবার করে ১৯৭৫ সালে বাকশাল প্রতিষ্ঠার মধ্য দিয়ে।

আওয়ামী লীগ ছলেবলে কৌশলে দেশ ধ্বংস করে দিচ্ছে মন্তব্য করে মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা সবাই জানি- গত এক বছর ধরে বাংলাদেশে একটি দলের শাসন চলছে। তারা ছলেবলে কৌশলে ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য রাষ্ট্রকে পুরোপুরিভাবে ধংস করে দেয়ার উপক্রম করেছে। গত নির্বাচনে দেখলাম অত্যন্ত সচেতনভাবে তাদের ক্ষমতায় নেয়ার জন্য রাষ্ট্রের সব প্রতিষ্ঠানকে ব্যবহার করেছে। এর চেয়ে ভয়ঙ্কর আর কিছু হতে পারে না।

ঐক্যফ্রন্টের ভাঙন নিয়ে মিডিয়ার সংবাদ প্রচারের সমালোচনা করে ফ্রন্টের মুখপাত্র ফখরুল বলেন, কিছু পত্র-পত্রিকা, টেলিভিশনের টকশোগুলোতে তথাকথিত বুদ্ধিজীবীরা বিএনপি আর ঐক্যফ্রন্টের দোষত্রুটি খুঁজে বেড়ান। অথচ আওয়ামী লীগ যে ইচ্ছাকৃতভাবে রাষ্ট্রকে ধংস করে দিলো, সংবিধানকে লংঘন করলো সে বিষয়গুলো বলার সাহস তারা পান না।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সেলিমা রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা প্রফেসর সাহিদা রফিক। বক্তব্য রাখেন প্রফেসর ড. দিলারা চৌধুরী, প্রফেসর ড. তাজমেরী এস ইসলাম, বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক বিলকিস জাহান শিরিন, মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, বিলকিস ইসলাম প্রমুখ

ফেমাসনিউজ২৪.কম/আরআই/আরবি