logo

শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৯ | ৬ বৈশাখ, ১৪২৬

header-ad

জাতীয় নির্বাচন নিয়ে বিএনপির চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত!

রাজনীতি ডেস্ক | আপডেট: ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অনিয়ম ও ভোট কারচুপির অভিযোগ এনে আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারির মধ্যে নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে মামলা করবে বিএনপি। এ নির্দেশনা দিয়েছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমান। এ কথা জানিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও পাবনা-৪ আসনের ধানের শীষের প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিব।

৯ ফেব্রুয়ারি শনিবার সন্ধ্যায় নয়াপল্টনে দলের প্রার্থীদের সঙ্গে স্কাইপিতে বৈঠক করেন তারেক রহমান। বৈঠক শেষে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব বলেন, নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে মামলার বিষয়ে আমাদের সিদ্ধান্ত হয়েছে। আগামী ১৫ তারিখের মধ্যে মামলা করব।

বৈঠকের একাধিক সূত্র জানায়, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট আসনভিত্তিক নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে মামলা করার ঘোষণা দিয়েছিল, কিন্তু সেই সিদ্ধান্ত থেকে কিছুটা সরে এসেছে। আসনভিত্তিক নয়, জেলাভিত্তিক একটি করে মামলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি।

এ লক্ষ্যে বিকেল থেকে তারেক রহমান প্রত্যেক জেলার একজন প্রার্থী নিয়ে দুই-তিন দফা বৈঠক করেন স্কাইপিতে। নেতারা নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে তারেক রহমানের সঙ্গে স্কাইপি বৈঠকে যুক্ত হন। বৈঠকে আগামী ১৫ তারিখের মধ্যে নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে মামলার সিদ্ধান্ত হয়।

নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে মামলার বিষয় ছাড়াও আন্দোলন-সংগ্রামের বিষয়েও আলোচনা হয়েছে বলে জানায় বিএনপি সূত্র।

স্কাইপি বৈঠকে তারেক রহমানের কাছে ছাত্রদলের পরিস্থিতি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন এক ভাইস চেয়ারম্যান। নিয়মিত ছাত্রদের নিয়ে ছাত্রদল কমিটি করার জন্য তারেক রহমানের কাছে দাবি জানান তিনি।

বৈঠকে মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ, ব্যারিস্টার ইরফান ইবনে আমান অমি, শরিফুল আলম, আনিসুর রহমান তালুকদার খোকন, জি কে গউছ, আজিজুল বারী হেলাল, লুৎফর রহমান কাজল, মিজানুর রহমান চৌধুরী, হাজী মুজিব, শামা ওবায়েদ, মিজানুর রহমান মিনু, জয়নুল আবদিন ফারুক, রফিকুল আলম মজনু, মাইনুল ইসলাম খান শান্ত প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
ফেমাসনিউজ২৪/এফএম/এমএম