logo

শুক্রবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ | ৭ আশ্বিন, ১৪২৪

header-ad

বানভাসিদের নিয়ে ফারহানা নাসিমের কবিতা

ফেমাসনিউজ ডেস্ক | আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৭

 

কবিতায় কি আর লিখবো!

-ফারহানা নাসিম-

যখন, খবরের কাগজের পাতায় অল্পবিস্তর বানভাসি মানুষের মুখ দেখা যায়,
যখন নিউজফীডে শোকের আর্তনাদ, টিভির পর্দায় অল্পতেই নিউজ কাভার....
তখন, কবিতায় আমি কি লিখবো?
আমি কি লিখবো, ৫৭ ধারার দাপট এখানে
বন্যার চেয়েও প্রবল?
আমি কি লিখবো, শোকের পোশাকে আমি দেখতে পেয়েছি কিছু চতুর সুবিধাবাদী শেয়ালমুখ?
তারা কাঙ্গালের ভোজে নিজেদের উদরপূর্তি করে
ক্ষমতাচাটা লোভে
একচামচ এক কাঙ্গালকে নিয়ে ছবি তোলে শ'খানিক?
কি লিখবো আমি কবিতায়?
আমি কি লিখে ফেলবো-
তাদের লোভী মুখের ঐসব ছবিতে আমি থুতু ফেলেছি সংগোপনে?
কবিতায় আমি কি আর লিখবো,
আমার কানে ভাসে জামালের বাপ আমাকে বলেছিলো,
" হামার কতা একানা নেইকেন বাহে।
ছৈল হামার নিন গেছিলো মায়ের কোলাত,
বিয়ান আইতে মুই পানিত ঝপাত করি আওয়াজ শুনি কোচ মারছিনু,
কোচ উঠায়া দেখো মোর ছৈল অক্তত ভাসি যাওছে। বাপ হয়া মুই ছৈলক মারি ফালাছু।
হামার কতা একানা নেকো বাহে। বান হামার সব কাড়ি নিছে, হামার কতা নেকো বাহে"।
কবিতায় আমি কি আর লিখবো-
যখন রেখার বরযাত্রী বানের জলে গ্রাম ভাসতে দেখে,
আসেনি আর ওকে বধুবেশে নিয়ে যেতে।
বিয়ে ভেঙ্গে অপয়া- পোড়ারমুখী নাম জুটেছে তার!
নাকি লিখবো, সুবোধকাকা এককেজি চিড়ের প্যাকেটহাতে হাত পেতে
নানানজনের সাথে গোটা পঞ্চাশেক ছবি তোলে,
সখিনা পাঁচপ্যাকেট স্যালাইন আর পানি শোধনের বড়ি নিয়ে
বানেডোবা ঘরের চালায় ফিরবে বলে জনপ্রতিনিধির সাথে
ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়ে হাসিমুখে মিথ্যে বলে
"হামার এঠেকোনা ইলিপ আইছে, হারা সবাই ইলিপ পাছু"?
কবিতায় আর কিইবা লেখার আছে আমার?
কবিতার লাইন এখন আর আমার মাথায় ঘোরেনা
হিসেবী সময়ের সাথে নিদারুণ যুদ্ধবাজ কবিতারা এখন মুখবন্ধ কফিনে শুয়ে।
আমার এখন কবিতা না আসাই ভালো
আমার এখন কবিতা না লেখাই ভালো।
এমন অগাধ জলের অবাধ বানের দিনে
কবিতা লিখলে পাপ হবে আমার,
কবিতায় আর কি লিখবো!
মগজে জমেনা কোন পঙতিমালা,
আমার এখন কবিতা না লেখাই ভালো
এখন কবিতা লিখলে, উত্তরকালে_
বানভাসি জীবনের লড়াইয়ে ক্লান্ত
আমার উত্তরের স্বজন অভিশপ্ত গালিতে আরেকজনকে ডাকবে "কবি"।।