logo

শুক্রবার, ১৭ আগস্ট ২০১৮ | ২ ভাদ্র, ১৪২৫

header-ad

কুষ্টিয়ায় দিনব্যাপী হজ প্রশিক্ষণ কর্মশালা

ইসমাইল হোসেন বাবু,কুষ্টিয়া থেকে | আপডেট: ১২ জুলাই ২০১৮

হাফেজ মাওলানা খলিলুর রহমান মুআল্লিম বলেছেন, হজের ৩টি ফরজ ও ৯টি ওয়াযেবসহ হজের নির্ধারিত শর্তসমূহ পূরণ করতে না পারলে হজ কবুল হবে না। হজ পালনের সময় কোন শেরেকী গুনাহ করলে হজব্রত পালনের উদ্দেশ্য ব্যাহত হবে। হজ পালন করা যেমন ফরজ, তেমনই হজের জ্ঞান অর্জন করাও হাজিদের জন্য ফরজ।

তিনি আরো বলেন, পবিত্র হজব্রত পালনের সময়ে অস্হিরতা পরিহার করে ধীরস্হিরভাবে সকল শর্তসমূহ পূরণ করে হজব্রত পালন করার জন্য তিনি হাজিদের প্রতি আহবান জানান।

আজ (১২ জুলাই) বৃহস্পতিবার সকালে ভেড়ামারা শহরের প্রাণকেন্দ্রে জামে মসজিদের ২য় তলায় এই প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

ভেড়ামারা উপজেলা জামে মসজিদের পেশ ইমাম তরুণ ইসলামী চিন্তাবিদ মাওলানা মুফতি আল আমীন বিশেষ মোনাজাতের পূর্বে তার বক্তব্যে বলেন, আলহাজ বা হাজী লিখে জাগতিক মর্যাদা বৃদ্ধির জন্য হজ করলে সে হজ কবুল হবে না। তিনি আরো বলেন, অনেকে ইলেকশন এলে নিজ নামের আগে আলহাজ লেখার জন্য হজ পালন করেন। কিংবা কোন নির্বাচনী প্রতিপক্ষ হজ করেছেন তাকে টেক্কা দেয়ার জন্য যদি কোন ব্যক্তি হজ করেন তবে সেসব হজ আল্লাহর দরবারে কবুল হবে না।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ২০১৮ সালে এ উপজেলায় পবিত্র হজ পালনে পুরুষ ও নারী মিলে প্রায় ৪৫ জন হজযাত্রী। এ ব্যাপারে তাদের অবগতির জন্য হজ পালন ও নানা কর্মসুচি সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন করতে দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। অনুষ্ঠানে ভেড়ামারা উপজেলা থেকে এ বছর ২০১৮ সালে যারা হজ পালন করতে যাচ্ছেন এমন প্রায় সংখ্যক হজ যাত্রীরাই প্রশিক্ষণ কর্মশালায় অংশ নেয়।

এসময় উপস্হিত ছিলেন এমএস ট্রাভেলসের মালিক আব্দুল হাফিজ, ভেড়ামারা হাজী কল্যাণ পরিষদের সভাপতি ধরমপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আ স ম আব্দুল কুদ্দুস। হাজী কল্যান পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ভেড়ামারা মহিলা কলেজের অধ্যাপক হাফেজ আলহাজ্ব খাদেমুল ইসলাম, কোষাধ্যাক্ষ আলহাজ্ব নুরুল ইসলাম, সাবেক প্রধান শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাক প্রমুখ।

ফেমাসনিউজ২৪.কম/জেডআর/এমআর