logo

বুধবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৮ | ১ কার্তিক, ১৪২৫

header-ad
দালাই লামার বিস্ফোরক স্বীকারোক্তি

বৌদ্ধ ধর্মগুরুদের যৌন নির্যাতন নতুন কিছু নয়!

ধর্ম ডেস্ক | আপডেট: ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮

তিব্বতের আধ্যাত্মিক ধর্মগুরু দালাই লামা বলেছেন, ‘বৌদ্ধ ধর্মগুরুদের বিরুদ্ধে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ নতুন কোনো ঘটনা নয়। তিনি ৯০ এর দশক থেকেই এসব জানেন।’

তিব্বতের এই ধর্মগুরু বর্তমানে নেদারল্যান্ডে চার দিনের সফরে আছেন। সেখানেই নির্যাতনের শিকার ব্যক্তিদের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তিনি এ বিস্ফোরক স্বীকারোক্তি দিয়েছেন।

এক অনলাইন বিবৃতিতে অভিযোগকারীরা বলেছেন, আমরা মুক্তমন ও উদার হৃদয়ে বৌদ্ধধর্মে আশ্রয় নিয়েছিলাম। অথচ ধর্মের দোহাই দিয়ে আমাদের সঙ্গে অন্যায় আচরণ করা হয়েছে।

গত শনিবার ডাচ পাবলিক টেলিভিশনে সেই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ৮৩ বছরের দালাই লামা বলেন, ‘আমি অনেক আগ থেকেই বৌদ্ধ ধর্মগুরুদের যৌন নির্যাতনের বিষয়গুলো জানি। এগুলো নতুন কিছু নয়।’

অভিযোগকারীদের অভিযোগ, বৌদ্ধধর্মকে পবিত্র মনে করলেও তাদের সেই ধারণা ভুল প্রমাণিত হয়েছে৷ তাদের সঙ্গে নির্যাতন করার পরও মুক্ত রয়েছেন অভিযুক্ত৷ স্বাধীনভাবে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। ফলে বৌদ্ধধর্মের ওপর থেকে বিশ্বাস হারাচ্ছেন তারা৷

দালাই লামা জানান, ১৯৮৩-এ তিনি প্রথম এমন ঘটনার অভিযোগ পান৷ বৌদ্ধ স্কুলের এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন ভারতের ধরমশালার এক মহিলা৷

তিনি জানান, এরপর থেকে একাধিকবার তার কানে এসেছে এমন অভিযোগ৷ তিনি আরও বলেন, যারা এমন ঘটনার সঙ্গে যুক্ত থাকেন, তারা কোনো জাতি বা ধর্মের হন না৷ তাদের পরিচয় একটাই, তারা অপরাধী৷ এর বিরুদ্ধে মানুষকে আরও বেশি সোচ্চার হতেও অনুরোধ করেন এই আধ্যাত্মিক ধর্মগুরু।

ফেমাসনিউজ২৪.কম/আরআই/আরবি