logo

শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৯ | ৬ বৈশাখ, ১৪২৬

header-ad

ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে যা বললেন ডাচ্ এমপি

ফেমাসনিউজ ডেস্ক | আপডেট: ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

দীর্ঘ ৭ বছর ধরে ইসলামের বিরুদ্ধে কথা বলেছেন। করেছেন ইসলামের কঠোর সমালোচনা। ইসলাম বিদ্বেষী একটি বই-ও লিখতে যান। কিন্তু বই লিখতে গিয়ে শেষমেশ ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। ২০১৮ সালের ২৬ অক্টোবর জোরাম ভ্যান ক্লাভিরিন (৩৯) ইসলাম গ্রহণ করেন।

জোরাম ২০১০ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত পার্লামেন্ট ফর দ্য ফ্রিডম পার্টির (পিভিভি) সদস্য ছিলেন। কিন্তু ২০১৪ সালে তিনি সে দল ছেড়ে দেন।

পিভিভি দল করার সময় ইসলামকে ‘মিথ্যা’ এবং কোরআন শরিফ'কে ‘বিষাক্ত’ বলে অভিহিত করেন এই ডাচ্ এমপি। তবে সম্প্রতি এর জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন তিনি।

এছাড়া ইসলাম গ্রহণ করার ব্যাখ্যাও দিয়েছেন তিনি। ডাচ রেডিওকে জানান, ইসলাম বিরোধী বইটি লিখতে গিয়ে আমাকে ইসলাম ধর্ম সম্পর্কে অনেক জানতে হয়। অনেক বিষয় পড়তে হয়। যা আমার ইসলাম সম্পর্কে ধারণা বদলে দেয়।

ইসলাম গ্রহণ করার সংবাদ মাধ্যমে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে সম্প্রতি ইসলামের নানা দিক তুলে ধরেন সাবেক এই ডাচ এমপি। তিনি জানান, ইসলাম ধর্মের কোনো সমস্যা নেই, তবে অনেকে এর বিকৃত ব্যাখ্যা দিয়ে ভুল তথ্য ছড়ান। ইসলামকে দোষারোপ করেন।

ইসলাম গ্রহণ করার ব্যাপারে নিজের পরিবারের প্রতিক্রিয়া কি, এমন প্রশ্নের জবাবে জোরাম বলেন, আমার স্ত্রী ব্যাপারটি মেনে নিয়েছেন। তবে তাঁর মা ব্যাপারটি নিয়ে মোটেই খুশি নন।

জোরাম যাবতীয় ভালবাসা দিয়ে ইসালামের ব্যাখ্যা করবেন বলে জানান।

কয়েকদিন আগে জোরামের ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করার খবর ছড়িয়ে পড়লে আন্তর্জাতিক মিডিয়ায় ব্যাপক শোরগোল পড়ে। বিশেষ করে নেদারল্যান্ডের অনেকে এটি নিয়ে হইচই করে।

নেদারল্যান্ডসে ধর্মীয় স্বাধীনতা রয়েছে। সেখানে নিজের ইচ্ছামত যেকেউ ধর্ম বদল করতে পারেন। দেশটিতে বর্তমান মোট জনসংখ্যা প্রায়, ১ কোটি ৭১ লাখ। নেদারল্যান্ডে মোট জনসংখ্যার প্রায় ৫ শতাংশ মুসলিম৷ তবে দেশটিতে নানা বাঁধা বিপত্তি সত্ত্বেও ক্রমেই মুসলিমদের সংখ্যা বেড়ে চলেছে৷

ফেমাসনিউজ২৪.কম/আরআই/এমআরইউ