logo

বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ | ২৮ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫

header-ad

নাম রাজনীতি

মতামত ডেস্ক | আপডেট: ১৬ নভেম্বর ২০১৮

নাম পাল্টানোর খেলা শুরু হয়েছে বিজেপি জমানায়। সঙ্কীর্ণ মনোভাব, সাম্প্রদায়িক রাজনীতি। ভারতবিখ্যাত স্টেশন মুঘলসরাই জংশন। যাতায়াতের পথে কত মানুষের কত সুখস্মৃতি জড়িয়ে। পাল্টে করা হল দীনদয়াল উপাধ্যায়ের নামে। উত্তরপ্রদেশের পর্যটনমন্ত্রী চরম দুঃখিত, লোকজন এখনও বলছে ‘‌মুঘলসরাই’‌। চিরকালই বলবে। আমরা তো বলবই।

‘‌মুঘল’‌ নামটা নিয়ে এত আপত্তি, তবে কি রাষ্ট্রপতি ভবনে বিখ্যাত মুঘল গার্ডেন–‌এর নামও পাল্টে দেয়ার চেষ্টা হবে?‌ অসম্ভব নয়। দিল্লি বিজেপি'র সভাপতির প্রস্তাব, নতুন নাম দেয়া হোক ‘‌মহাভারত‌ উদ্যান’‌। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বলে দিয়েছেন, এলাহাবাদ শহরের নাম পাল্টাতেই হবে। রাজ্য মন্ত্রিসভা প্রস্তাব পাশ করেছে। স্থানীয় স্তরে খানিক আলোচনা।

আদিত্যনাথ নিশ্চিত, আগামী লোকসভা ভোটের আগেই এসে যাবে নতুন নাম। এলাহাবাদের ১৫ জন নাগরিক আপত্তি জানিয়ে আদালতে গেছেন। ঐতিহাসিক নাম এভাবে বদলে দেয়া যায় না। বম্বে থেকে মুম্বাই, মাদ্রাজ থেকে চেন্নাই, বাঙ্গালোর থেকে বেঙ্গালুরু করা নিয়ে কোনও আপত্তি ওঠেনি।

ক্যালকাটা থেকে কলকাতা, হওয়ারই ছিল। কিন্তু এলাহাবাদ থেকে প্রয়াগরাজ মানা যায়?‌ বহু মানুষ আগের মতোই এলাহাবাদ নামে ডাকবেন নিজেদের প্রিয় শহরকে, দেশের অন্য সব জায়গার মানুষও তা–‌ই বলবেন। ফৈজাবাদের নাম পাল্টে করা হতে পারে অযোধ্যাশ্রী, যোগী আদিত্যনাথই জানিয়েছেন।

ফতেপুর সিক্রির নাম পাল্টাতে হবে। প্রস্তাব। কী নাম হবে?‌ বিজেপি নেতা বলছেন, ‘‌ভারত সৌধ’‌ হতে পারে!‌ হিমাচলের বিজেপি সরকার প্রস্তাব ভাসিয়েছে, সিমলা নয়, হোক শ্যামলা। উচ্চারণের সুবিধার জন্য নাকি ব্রিটিশরা ‘‌সিমলা’‌ নাম দিয়েছিল!‌ আমরা সিমলাই বলব।

কলকাতা থেকে আন্দামান, তিনটে জাহাজ। একটার নাম আকবর। প্রস্তাব, ‘‌পৃথ্বীরাজ’‌ করা হোক। ইতিহাসে ধর্মনিরপেক্ষ শাসক হিসেবে যিনি চিরস্মরণীয়, তার নাম বাতিল?‌ বাংলায় সঙ্ঘ পরিবারের নথিপত্রে নাকি ইসলামপুরকে বলা হচ্ছে ঈশ্বরপুর। হবে না। এখানে চলবে না। দেশজুড়ে নাম বদলানোর গেরুয়া কর্মসূচি রূপায়ণও আটকে যাবে। ‌‌‌‌
ফেমাসনিউজ২৪/এফএম/এমএম